বহুমুখী হাসপাতাল সেবা নিয়ে নতুন ঠিকানায় নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার

0
7

উদ্বোধন করলেন জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি

ঢাকা, ২২ ডিসেম্বর, ২০২১, বুধবার: বড় পরিসরে কিডনি রোগীদের সেবা দিতে নতুন ঠিকানায় স্থানান্তর হয়েছে নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার। এখন থেকে পান্থপথের সিটি টাওয়ারের চতুর্থ তলায় নিজেদের কার্যক্রম পরিচালনা করবে জাপানের বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান নিপ্রো কর্পোরেশন এবং বাংলাদেশি শিল্পগ্রুপ জেএমআই-এর যৌথ অংশীদারের এই প্রতিষ্ঠানটি। ফলে কিডনি রোগীরা দিনরাত ২৪ ঘণ্টা পাবেন ডায়ালাইসিস, আইসিইউ, রোগ নির্ণয়, অস্ত্রোপচার, জরুরি বিভাগসহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক সেবা।

বুধবার সকালে নতুন ঠিকানায় নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টারের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানি রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি। এসময় তিনি প্রতিষ্ঠানটি পরিদর্শন করে কর্তব্যরত চিকিৎসক-নার্স এবং সেবাগ্রহীতাদের সঙ্গে কথা বলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইতো নাওকি প্রতিষ্ঠানটিতে আধুনিক যন্ত্রপাতির ব্যবহার আর পরিচ্ছন্নতা নিয়ে প্রশংসা করেন। এই প্রতিষ্ঠানটির মাধ্যমে কিডনি রোগীদের সেবায় জাপান-বাংলাদেশের যৌথ সুনাম বাড়বে বলেও প্রত্যাশা করেন জাপানের রাষ্ট্রদূত।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানানো হয়, কিডনি রোগীদের জন্য এক জায়গায় সব ধরণের সেবা নিশ্চিত করতেই নতুন ঠিকানায় স্থানান্তরিত হয়েছে নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার। কেননা একই ভবনে থাকছে দীর্ঘদিন ধরে কিডনি রোগীর সেবায় কাজ করা প্রতিষ্ঠান ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনী হাসপাতাল লিমিটেড। দীর্ঘদিন ধরেই আলাদাভাবে আলাদা জায়গায় কিডনি রোগীদের সেবা দিয়ে আসছিলো প্রতিষ্ঠান দুটি।

এসময় জেএমআই গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘২০১১ সাল থেকে আমরা জাপানের সাথে মিলে নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপন করি। আমরা জাপানের অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে ডায়ালাইসিস সেবা দিয়ে আসছি। এই কাজ আরও ত্বরান্বিত করতে এবং ডায়ালাইসিস ছাড়াও অন্যান্য সেবা রোগীদের নাগালে সরবরাহ করতেই আমরা ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনী হাসপাতালের সঙ্গে একই ভবনে যাত্রা শুরু করলাম।’

নিপ্রো-জেএমআইয়ের সঙ্গে একই ভবনে ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনী হাসপাতালের সেবা থাকায় দেশের কিডনি রোগীদের চিকিৎসার মান কয়েক ধাপ উন্নতি হবে বলে মন্তব্য করেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. ইউসুফ হোসেন নূর। তিনি বলেন, ‘রোগ শনাক্তের প্রাথমিক পর্যায়ে চিকিৎসা শুরু করলে কিডনির রোগীদের আরও বেশিদিন বাঁচার সম্ভাবনা থাকে। আমরা চাই সবার জন্য উন্নত প্রযুক্তির ডায়ালাইসিস সেবা নিশ্চিত করতে। এক্ষেত্রে নিপ্রো-জেএমআই আমাদের পাশে আছে। দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠীকেও আমরা এই সেবার আওতায় নিয়ে আসবো।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনী হাসপাতাল লিমিটেডের ভাইস-চেয়ারম্যান সৈয়দ হারুন অর রশিদ, জেএমআই গ্রুপের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম এবং নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক কুনিও (কেনি) তাকামিদো।