এক জায়গায় কিডনি রোগের সকল চিকিৎসা

0
4

নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিসের সঙ্গে ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনী হাসপাতালের চুক্তি সই

ঢাকা, ০২ নভেম্বর, ২০২১, মঙ্গলবার: কিডনি রোগীদের জন্য সব ধরণের সেবা নিশ্চিত করতে একযোগে সেবা দিবে অভিজ্ঞ দুই প্রতিষ্ঠান নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার লিমিটেড এবং ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনী হাসপাতাল লিমিটেড।

এ উপলক্ষে মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর পান্থপথে চুক্তিতে সই করেন নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুর রাজ্জাক এবং ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনী হাসপাতাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ ইউসুফ হোসেন নূর।

এসময় জানানো হয়, দীর্ঘদিন ধরেই আলাদাভাবে কিডনি রোগীদের সেবা দিয়ে আসছে প্রতিষ্ঠান দুটি। সেবার মান আরও বাড়াতেই দুই প্রতিষ্ঠানের এক হওয়া। চুক্তির আওতায় হাসপাতালের জায়গা এবং অন্যান্য আনুষঙ্গিক সুবিধা ব্যবহার করে জাপানি যন্ত্রপাতি, কারিগরি দক্ষতা আর দক্ষ চিকিৎসক-নার্সদের মাধ্যমে কিডনি রোগীদের জন্য ওয়ানস্টপ সেবার ব্যবস্থা করবে নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার।

এ বিষয়ে জেএমআই গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুর রাজ্জাক বলেন, “নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার বাংলাদেশ-জাপান যৌথ বিনিয়োগের একটি প্রতিষ্ঠান। বিগত বছরগুলোতে আমরা জাপানের অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে ডায়ালাইসিস সেবা দিয়ে আসছি। একইসঙ্গে ডায়ালাইসিস ছাড়াও অন্যান্য সেবা রোগীদের নাগালে সরবরাহ করার লক্ষ্যে আজ (মঙ্গলবার) আমরা ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনী হাসপাতালের সঙ্গে চুক্তি সই করলাম।”

নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক কুনিও (কেনি) তাকামিদো বলেন, “বাংলাদেশে কিডনি চিকিৎসায় পথিকৃৎ ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনী হাসপাতাল। পাশাপাশি কিডনির চিকিৎসায় ব্যবহার হওয়া সরঞ্জামসহ অন্যান্য যন্ত্রপাতি উৎপাদনে শীর্ষে রয়েছে জেএমআই গ্রুপ। এই দুই প্রতিষ্ঠান একসঙ্গে কাজ করলে বাংলাদেশের কিডনি রোগের চিকিৎসা সেবার ক্ষেত্রে যুগান্তকারী পরিবর্তন আসবে বলে আমার বিশ্বাস। এই উদ্যোগের সাথে থাকতে পেরে নিপ্রো কর্পোরেশন গর্বিত।”

নিপ্রো-জেএমআইয়ের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার ফলে ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনি হাসপাতালে কিডনি রোগীদের চিকিৎসার মান কয়েক ধাপ উন্নতি হবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ ইউসুফ হোসেন নূর। তিনি জানান, “এখন পর্যন্ত আমাদের হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সাড়ে নয় বছর পর্যন্ত একজন রোগী বেঁচে ছিলেন। রোগ শনাক্তের প্রাথমিক পর্যায়ে চিকিৎসা শুরু করলে কিডনির রোগীদের আরও বেশিদিন বাঁচার সম্ভাবনা রয়েছে।”

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার লিমিটেডের কনসালট্যান্ট ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের কিডনি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডাঃ নজরুল ইসলাম, ধানমন্ডি জেনারেল এন্ড কিডনী হাসপাতাল লিমিটেডের ভাইস-চেয়ারম্যান সৈয়দ হারুন অর রশিদ, পরিচালক (প্রশাসন) মো. মাহবুব উল ইসলাম, পরিচালক (অর্থ) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, পরিচালক (মানসম্পদদ উন্নয়ন) মো. সফিকুল করিম এবং পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন ও মো. তারেক মাহমুদ খান।