৮ই আগস্ট বঙ্গমাতা দিবস ঘোষণা করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন

6
243

৮ আগষ্ট #বঙ্গমাতা_দিবস”
ঘোষণা করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়েছেন বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোট এর নেতৃবৃন্দ।

গতকাল মঙ্গলবার(১৫ সেপ্টেম্বর) বঙ্গমাতা পরিষদের নেতৃবৃন্দ এক বিবৃতিতে জানান গত সোমবারে(১৪ সেপ্টেম্বর)মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে মন্ত্রী সভার বৈঠকে হাজার বছরের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী মহীয়সী নারী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন ৮ আগষ্ট কে বঙ্গমাতা দিবস হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়েছে।প্রতি বছর এই দিনটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের যে যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার গ্রহণ করেছেন তা নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয় এবং সময়োপযোগী পদক্ষেপ।
বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনে বঙ্গবন্ধুর পাশে থেকে এই মহীয়সী নারী যে অনন্য অসাধারণ অবদান রেখেছেন তা জাতি চিরদিন কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করবে। দেশ ও জনগণের কল্যাণে তার আজীবনের অসামান্য ত্যাগ অস্বীকার করার কোন উপায় নেই। ‘৫২ র ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে সকল ন্যায় সংগত গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর পাশে থেকে আমৃত্যু তিনি দেশ ও দশের সেবা করে গেছেন। তার ঋণে বাঙালি জাতি অনেক ঋণী। প্রতি বছর ৮ আগষ্ট সরকারিভাবে জাতীয় পর্যায়ে তার জন্মদিন পালনের মাধ্যমে আমাদের ঋণের বোঝা কিছুটা হলেও কমবে বলে পরিষদের নেতৃবৃন্দ মনে করেন।
এসময় সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ উল্লেখ করেন- অনেক আগেই এই মহীয়সী নারীকে যথাযোগ্য মর্যাদা দেয়া প্রতিটি সরকারের উচিৎ ছিল। কিন্তু দূর্ভাগা যে, তাকে সম্মান দেয়ার বদলে “১৫ আগষ্টের হত্যাকান্ডের বিচারকে বন্ধ করতে সংবিধানে ইন্ডেমনিটি অর্ডিন্যান্স জারী করেছে। পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা জনগণের বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়ে বঙ্গবন্ধুর সপরিবার হত্যার বিচার করেন।
এই যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত মন্ত্রী সভায় গৃহীত হওয়ায় পরিষদের নেতৃবৃন্দ অত্যন্ত আনন্দিত এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট কৃতজ্ঞ।
বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোট এর প্রতিষ্ঠাতা #সভাপতি বিশিষ্ট গীতিকার ও সুরকার #শেখ_শাহ_আলম, সম্পাদক আইয়ুব আলীসহ সংগঠনের উপদেষ্টামন্ডলী।