হৃদয় মালাকার’র কবিতা।

429
1379

সান্ত্বনা
||
নিজেকে সান্ত্বনা দেওয়ার মতো শব্দ
আমি ক্রমাগত খেয়ে ফেলেছি।
ত্রাণের টাকা পাইনি, রেশন চুরি হয়ে গেছে
আম্ফানে ঘর ভেঙে গেছে, বরজ মাটিতে শুয়ে
কই ফুটো পয়সাও তো কেউ চোখের সামনে ধরলোনা!

কেউ না মানুক সরকার মেনেছে
এ তল্লাটে আমার চেয়ে ধনী কেউ নেই।
আমি ঠিক বিদ্রোহে যেতে গিয়ে
গুটিয়ে নিয়েছি পা
যদি দুটো পা-কেই হারাই!
যদি খাটতে না পারি রোজে
আমার বাপ মায়ের পেট থেকে
উড়ে যাবে গীতা
চোখে হারাবে ঘুম।

নিজের সঙ্গে আর কতো আপোষ করা যায়?
কতো মিথ্যে বোঝানো যায়?
ঈশ্বর, তার চেয়ে বরং খুন করে দাও আমায়; আমাদের!
তবে, ভারতবর্ষ থেকে কমে যাবে তিনটি ক্ষুধার্ত পাকস্থলী
আর একটি প্রতিবাদী গলা।

নিজেকে আর কতো মিথ্যে বোঝানো যায়?
আমি কি আর মন্ত্রীদের মতো বোঝাতে পারি বলো?