রায়হান আহমেদ’র দু’টি কবিতা।

0
212

একদিন

 

একদিন কেটে যাবে মায়া,
যেমনটা কেটে যায় মেঘ।
একদিন ছায়া হয়ে রবো,
দূর হবে সব উদ্বেগ।

একদিন শুধু হব স্মৃতি,
দূর হব দূর অজানাতে।
ভেঙে দিয়ে সবকটা রীতি,
ধ্রুবতারা হয়ে রবো রাতে।

একদিন খুঁজে ফিরে হবে দিশেহারা,
ওপারেতে একা রবো বেশ।
দরজাতে নেড়ো না তো কড়া,
কায়াক্লেশে হয়ে গেছে সময়ে র শেষ।

খুঁজে দেখো দূর নীলীমায়,
মেঘমালা নেচে নেচে যায়।
তারই মাঝে খুঁজে পাবে মোরে,
সময়ের হয়ে গেছে শেষ –
বৃথা কেন কড়া নাড়ো দোরে।

———————

কোনো কিছু থামবে না

 

মুছে যায় বারিধি, মুছে যায় মেঘ।
মুছে যায় অশ্রু, হারে উদ্বেগ।
থেমে যায় বৃষ্টি, উবে যায় বান,
মৃত লোকে ভরে যায় শূন্য শ্মশান।
দুঃখরা মুছে যায়, মুছে যায় শোক।
মিটে যায় স্বপ্ন, মিটে সম্ভোগ।
হাত ছেড়ে চলে যায়, হাতে রাখে হাত,
জলে জলে ভরে যায় শূন্য প্রপাত।
চাই সুখ, পাই দুখ।
সুখ আসে, দুখ যায়।
সুখ দুখ মিলে দুই এ জীবন অধ্যায়।
শূন্য ভরে যায়, খালি হয় পূর্ণ
এই করে পৃথিবী, বদলেই ধন্য।
থেমে নেই, থামবে না।
পালা করে আসে সব।
শূন্যে মিলাবে সব, শূন্যেই উদ্ভব।