মুজিববর্ষ: পিরোজপুরে ঘর ও জমি পাচ্ছে ১১৭৫টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার

0
304

হাসান মামুন, পিরোজপুর:

মুজিব শতবর্ষে বাংলাদেশে একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ নির্দেশনা বাস্তবায়নের লক্ষে জেলায় মোট ১১৭৫টি গৃহ নির্মাণ করে গৃহহীন ও ভূমিহীনদের মাঝে বিতরণ করা হবে।

পিরোজপুরের জন্য বরাদ্দপ্রাপ্ত ১১৭৫টি ঘরের মধ্যে ইতোমধ্যেই ৩৭৫টির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে আশ্রায়ন-০২ প্রকল্পের অধীন পিরোজপুর জেলায় ৩৭৫টি ঘর ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি প্রদান এবং গৃহ প্রদান কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসকের হল রুমে এক মতবিনিময় ও প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জেলা প্রশাসক আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ হুমায়ুন কবীর, আরডিসি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ ফখরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। জেলা প্রশাসক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ বিষয় ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার উপস্থিত সংবাদ কর্মীদের বিষদভাবে বর্ননা করেন।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী শনিবার (২৩ জানুয়ারি)এ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করবেন।

একই দিন প্রথম ফেজে পিরোজপুর জেলার ৭টি উপজেলার মধ্যে সদর উপজেলায় ৩৫টি, নাজিরপুরে ৫৫টি, নেছারাবাদে ৭৫টি, ভান্ডারিয়ায় ৪৫টি, ইন্দুরকানিতে ৭৫টি, কাউখালীতে ৫০টি ও মঠবাড়িয়া উপজেলায় ৪০টি ঘর বিতরন করা হবে।

তিনি বলেন, যাদের জমি নাই তাদের ২ শতাংশ খাস জমি বন্দোবস্ত দেওয়া পূর্বক কবুলিয়ত দলিল ও নামজারী সম্পন্ন করা হয়েছে।

দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়, আশ্রয়ণ প্রকল্প-২, ভূমি মন্ত্রনালয় ও জেলা প্রশাসক এর কার্যালয় পিরোজপুর এ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় ভূমি বন্দোবস্ত দেয়া ও ঘর নির্মাণ করছেন। প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা।

এজন্য বরাদ্দ রয়েছে ২০ কোটি ০৯ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা। ৩৬৩ বর্গফুটের প্রতিটি ঘরে ১টি বারান্দা, ২টি কক্ষ, ১টি বাথরুম ও ১টি রান্নাঘর থাকবে। উপরে টিনের ছাউনির এবং পাকা ফোর এবং ওয়াল দিয়ে নির্মিত এ ঘরগুলি দৃষ্টিনন্দনও বটে।