বিভাগীর শ্রেষ্ঠ জয়িতা সম্মাননা পেলেন সরিষাবাড়ীর বেগম রেজিয়া রহমান

0
222


ছবি- অতিথিদের কাছ থেকে সম্মাননা গ্রহন করছে রত্নাগর্ভা মহিয়সী নারী বেগম রেজিয়া রহমান।

নিজস্ব প্রতিবেদক

ময়মনসিংহ বিভাগীয় পর্যায়ে রত্নাগর্ভা ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ জয়িতার সম্মাননা পেলেন জামালপুরের সরিষাবাড়ীর রত্নাগর্ভা মহিয়সী নারী বেগম রেজিয়া রহমান। ৪ জানুয়ারী মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বিভাগীয় কমিশনারের আয়োজনে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ জয়িতাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠনের প্রধান অতিথি মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেছা ইন্দিরা এম পি।
ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার কামরুল হাসান এনডিসির সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কাজী রওশন আক্তার।
উল্লেখ্য শ্রেষ্ঠ জয়িতা রেজিয়া রহমানের ৫ সন্তানের ৪ জন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন । আরেক জন সরিষাবাড়ী কলেজ থেকে স্নাতকোত্তর পাশ করেছে। তারা হলেন, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড.এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান, জামালপুর বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর.ড.এ এইচ এম মাহবুবুর রহমান, সরিষাবাড়ী কলেজের উপাধ্যক্ষ এ এইচ এম মিজানুর রহমান মিজান,সরিষাবাড়ী কলেজের প্রভাষক এ এইচ এম মাছুদুর রহমান ও আরেক জন এ এইচ এম মাহফুজুর রহমান, অবসর প্রাপ্ত বেসরকারি চাকুরীজীবি।
শ্রেষ্ঠ জয়িতা রেজিয়া রহমানের বড় ছেলে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড.এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়কে সুন্দর একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করার জন্য। যে অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মায়েদের সম্মান করা হয়। আমার মা মহান মুক্তিযুদ্ধে তার স্বামীকে হারিয়ে দুচালা টিনের ঘরে থেকেও অনেক কষ্ঠ করে আমাদের পাঁচ ভাইকে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা করিয়ে দেশর যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলেছেন। আজ সেই মাকে রাষ্ট্র সম্মাননা করেছেন। আমি সত্যিই আনন্দিত ও গর্বিত।
তিনি আরো বলেন বাংলাদেশের গ্রাম গঞ্জে আরো অনেক এমন মারেরা রয়েছেন। তাদেরকে খোঁজে বের করে সম্মাননা দেওয়া দরকার। তাহলেই জাতি হিসাবে আমরা আরো সম্মানিত হবো। কেননা একটি ভালো দেশ গড়ার পিছনে সবচেয়ে বড় অবদান একজন মায়ের।