প্রকৌশলীকে লাঞ্ছিত করায় ঠিকাদারের লাইসেন্স বাতিল

0
265

জুটন বনিক, আখাউরা (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) থেকে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলীর ওপর হামলা চালিয়ে তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করায় মোঃ ইয়াছিন মোল্লা নামের এক ঠিকাদারকে  কালো তালিকাভ’ক্ত করে  তার লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।
স্থানীয়রা জানায়, গত বৃহস্পতিবার(১২ নভেম্বর) সকালে পৌরশহরের তারাগণ এলাকায় একটি রাস্তার উন্নয়ন কাজ চলাকালীন সময়ে মেসার্স কল্লা শহীদ এন্টার প্রাইজের সত্বাধিকারী ইয়াছিন মোল্লা নির্মাণ কাজে  নি¤œমানের সামগ্রি ব্যবহার করতে পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ তারিকুল ইসলামের কাছে অনুমতি চাই। অনুমতি না দেওয়ায়  সে প্রকৌশলীর ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এক প্রকার তাকে প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়। এসময়  সহযোগীদের সাথে নিয়ে হামলা চালিয়ে তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। পরে পৌরসভার প্রকৌশলী বিভাগের লোকজনসহ স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে তারা সটকে পড়ে।
পৌরসভার সচিব মোহাম্মদ ফারুক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,  ঠিকাদার ইয়াছিন মোল্লাকে  রাস্তার নির্মাণ কাজে নি¤œমানের সামগ্রি ব্যবহারে অনুমতি না দিলে নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে অশালীন আচরণসহ তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।
তিনি আরো বলেন, ওই দিনই তাকে পৗরসভায় কালো তালিকাভ’ক্ত ব্যক্তি হিসাবে গণ্য করে পাবলিক প্রকিউরমেন্ট আইন ২০০৬ এর ধারা ৬৪ এর উপধারা মোতাবেক তাৎক্ষণিকভাবে তার  ‘মেসার্স কল্লা শহীদ এন্টার প্রাইজ’ নামের লাইসেন্সটি বাতিল করা হয়েছে। এছাড়া দুপুরের দিকে তার বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।
ঠিকাদার ইয়াছিন মোল্লা জানান, প্রকৌশলীর বেশি বাড়াবাড়ির কারণেই বিবাদের সৃষ্টি হয়। এখানে আমার কোনো দোষ ছিল না। তবে সাথে সাথেই বিষয়টি মীমাংসা হয়ে  যায়।
এ ব্যাপারে আখাউড়া পৌরসভার মেয়র মোঃ তাকজিল খলিফা কাজল বলেন, দোষী ঠিকাদারকে কালো তালিকাভ’ক্ত করে ইতিমধ্যেই তার লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার  জন্য থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।