নিকলীতে প্রতিমা ভাংচুর: আটক ৫ জন: একজনের স্বীকারোক্তি

0
279


কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

নিকলীর কালীমন্দিরে প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনায় আটক পাঁচজনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আটককৃতদের মধ্যে উত্তম বর্মন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।
গত মঙ্গলবার রাতে নিকলী উপজেলায় সদর ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামে শ্রী নিবাস বর্মনের বাড়িতে কালী পূজা উপলক্ষে নির্মিত অস্থায়ী মন্ডপে প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।
নিকলী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শামসুল আলম সিদ্দীকি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মন্ডপের কাছে গান বাজানোকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি ও ঝগড়ার একপর্যায়ে প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রাতেই থানায় মামলা দায়েরের পর পরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে আটক করে।
আটকৃতরা হলেন- ভবানীপুর গ্রামের উত্তম বর্মন (৩৫), পাপ্পু বর্মন (২৬), ইরেন্দ্র বর্মন (৪০) এবং বড়হাটি গ্রামের তাজুল ইসলাম শিপন (৩৫) এবং সুরুজ আলী (৪২)।
কিশোরগঞ্জ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের কোর্ট ইন্সপেক্টর হাম্মাদ হোসেন জানান, গতকাল বুধবার আসামী উত্তম বর্মন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক এসএম আনিসুল হকের নিকট ফৌজদারী কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বিচারক তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করেন।