“নদী ভাঙলে জমি খাস” আইন বাতিলের দাবীতে কালসিতে মানববন্ধন

0
269

“নদী ভাঙলে জমি খাস” আইন বাতিলের দাবীতে আজ ১২ ফেব্রুয়ারী সকাল ১০টায় মিরপুরের কালসিতে নদী সিকস্তি অঞ্চলের মানুষ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। মানববন্ধনে নেতৃবৃন্দ বলেন- নদী ভাংগনে জমি নদীগর্ভে বিলীন হলেই বর্তমান সরকারি আইনে জমি খাস হয়ে যায় অর্থাৎ কৃষক ঐ জমির উপর প্রজাস্বত্ব হারায়, এটি একটি অযৌক্তিক,অন্যয্য ও অমানবিক উপনিবেসিক আইন। যদিও উপনিবেসিক ব্রিটিশ ও পাকিস্তান আমলে ২০ বছরের মধ্যে সিকস্তি জমিতে চর জেগে উঠলে ৮৬ ধারা বলে ৩ বছরের বকেয়া ও ১ বছরের হাল খাজনা দিয়ে প্রজাস্বত্ব ফিরে পাওয়া যেত কিন্তু স্বাধীন দেশে পি.ও ১৯৭২ জারী করে সেই অধিকারও হরণ করা হয়েছে। বক্তারা বলেন নদী সরকারের, জমি কৃষকের, সরকারের নদী কৃষকের জমি ভেংগে ক্ষতি করলে যেখানে সরকারের পক্ষথেকে ক্ষতিপূরণ দেয়া উচিৎ সেখানে উল্টা প্রজাস্বত্বই হরণ করা হয়েছে। এটি অন্যয়, অন্যয্য এবং স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্র চেতনার পরিপন্থি। স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্র সৃষ্টির পেছনে কৃষক সবচেয়ে বেশি অবদান রেখেছে তাই এই দেশে কৃষকের স্বার্থ বিরোধী কোন আইন থাকতে পারে না। আমরা এই আইন বাতিল চাই। সংসদে আইন পাশ করে চলতি সনের খাজনা পরিশোধ সাপেক্ষে প্রজাস্বত্ব ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি। সংগ্রাম কমিটির আহবায়ক প্রবীণ কৃষক নেতা আব্দুল কাদেরের সভাপতিত্বে কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন সংগ্রাম কমিটির সমন্বয়ক ও বাংলাদেশ কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হোসেন খান, সংগ্রাম কমিটির নেতা আব্দুল আজিজ মল্লিক, গোলাম ফারুক মাস্টার, কবি আলতাফ হোসেন মাস্টার, স্থানীয় নেতা ফরিদুল হক প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।