দেবিদ্বারে শিশু বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

0
321

ফখরুল ইসলাম সাগর, নিজস্ব প্রতিবেদক

দেবিদ্বার পৌর এলাকার ‘জামিয়া ইসলামিয়া বাইতুন-নূর হাফিজিয়া মাদ্রাসাথর ১৩ বছরের এক শিশু বলৎকারের ঘটনায় ওই মাদ্রাসার আবাসিক শিক্ষক ক্বারী মোহাম্মদ শাহজালাল মাঝি(২৫)কে গ্রেফতার পূর্বক শনিবার সকালে কুমিল্লা কোর্ট হাজতে প্রেরন করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ। আটক শিক্ষক ক্বারী মোহাম্মদ শাহজালাল মাঝি(২৫) উপজেলার ধামতী (উত্তর পাড়া মাঝি বাড়ি) গ্রামের মো. নজরুল ইসলাম মাঝির পুত্র।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, ভিক্টিম শিশুটি ওই মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র এবং আবাসিক কক্ষে অন্যান্য শিক্ষার্থীদের সাথে থাকত। শিক্ষক ক্বারী মোহাম্মদ শাহজালাল প্রায়ই তাকে যৌন নিপীড়নের চেষ্টা করে আসছিল। গত ৬ নভেম্বর রাত ১০টায় তাকে নানাভাবে মারধর ও ভয়ভীতি দেখিয়ে বলৎকার করে। বিষয়টি তার মাথ ও বাবাথকে বললে, তারা মাদ্রাসা পরিচালনা পর্ষদ ও প্রধানের সাথে যোগাযোগ করলে তারা আইনের আশ্রয় নিতে পরামর্শ দেন। ভিক্টিমের পিতার লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে শুক্রবার রাতে দেবিদ্বার থানা পুলিশ অভিযুক্ত ক্বারী মোহাম্মদ শাহজালাল মাঝি(২৫)কে মাদ্রাসার আবাসিক কক্ষ থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ জানান, বলাৎকারের ঘটনায় ভিক্টিম শিশু(১৩) এর পিতা বাদী হয়ে ক্বারী মোহাম্মদ শাহজালাল মাঝি (২৫) কে এক মাত্র আসামী করে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন (মামলা নং- ১৬, তাং-১৪/১১/২০২০ইং)। আসামীকে ভিক্টিম সহ আদালতে পাঠানো হয়েছে। দায়িত্বপ্রাপ্ত বিশেষ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মাহবুব হোসেন খানথর আদালতে ভিক্টিমের ২২ধারায় জবানবন্দী, ডাক্তারী পরীক্ষা করা এবং আসামীর ১৬৪ধারায় জবানবন্দী নথিভূক্ত করা হয়েছে।