দাউদকান্দিতে ভুয়া আইডি খুলে উপজেলা চেয়ারম্যান এর বিরুদ্ধে অপপ্রচার: প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

0
278

লিটন সরকার বাদল:

দাউদকান্দি উপজেলায় ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে কুমিল্লা-১ আসনের সংসদ সদস্য পরিবারের সদস্যদের নিয়ে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ও প্রতিবাদ সভা করেছেন দাউদকান্দি উপজেলা আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগ।

এমপি জেনারেল ভূঁইয়া ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে ফেসবুকে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে, থানায় সাধারণ ডায়েরি দায়ের।

সোমবার (১২ এপ্রিল ২০২১) বিকালে উপজেলার আমিরাবাদে, দাউদকান্দি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের কার্যালয় এই সংবাদ সম্মেলন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য,ফেসবুকের ভুয়া আইডি থেকে কুমিল্লা-১ আসনের সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) সুবিদ আলী ভূঁইয়া, তাহার সহধর্মিনী বেগম মাহমুদ ভূঁইয়া ও দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মেজর মোহাম্মদ আলী(অব.) এর নামে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে দোষীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সভাপতি সোহেল রানা বলেন, যারা আজকে দাউদকান্দির উন্নয়নের রূপকার ভূঁইয়া পরিবারের নামে ফেসবুকে ভুয়া আইডি থেকে অপপ্রচার চালাচ্ছে তারাই স্বাধীনতা মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি।

আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার নামে সকল অপপ্রচার নস্যাৎ করে দেবো। আজ সরকার বিরোধী সকল আন্দোলনে যখন মেজর মোহাম্মদ আলী ভাই অগ্রণী ভূমিকা পালন করে চলছে তখন বিএনপি-জামাত- শিবির এবং হেফাজতের কিছু দুষ্কৃতিকারী কুলাঙ্গার, ঘাপটি মেরে বসে ভুয়া আইডি থেকে ফেসবুকে মিথ্যা অপবাদ চালাচ্ছেন, দাউদকান্ডি মেঘনা বাসি কুলাঙ্গারদের এই অপপ্রচার কে ঘৃণা চোখে প্রত্যাখ্যান করেছে।

এসময় তিনি আরো বলেন, বিএনপি-জামাত ও হেফাজতের ভুয়া অপপ্রচারের বিরুদ্ধে কথা বলায় উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নেতাকর্মীরা লাঞ্চিত হচ্ছে। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ প্রশাসন মামলা না নিয়ে সাধারণ ডায়েরি দায়ের করেন। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগ এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

আমরা মুক্তির প্রজন্ম লীগের পক্ষ থেকে অনতিবিলম্বে এই ভুয়া আইডির বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ করে দোষীদের দ্রুত সময়ের মধ্যে খুঁজে বের করতে না পারলে তীব্র আন্দোলনের ঘোষণা দিচ্ছি।

এসময় আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সাধারণ সম্পাদক মো.অলিউল্লাহ ফকির ও প্রজন্ম লীগের নেতৃবৃন্দ।