তাহিরপুরে আগুনে পুড়ে প্রতিবন্ধীর দোকান ছাইঁ

0
256


সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

আগুনের লেলিহান শিকায় তছনছ হয়ে গেছে প্রতিবন্ধী (দুইচোখ অন্ধ) তোষা মিয়ার জীবন। বেচেঁ থাকার একমাত্র মুদি দোকান ঘরটি চোখের সামনে দাহ দাহ আগুনে মুহুর্তেই পুরে ছাইঁ হয়ে যায়। ততক্ষণে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন অসহায় এই প্রতিবন্ধী ও তাঁর পরিবার।

জানা গেছে, মঙ্গলবার দিনগত মধ্যরাতে অজানা কারণে তোষা মিয়ার দোকান ঘরে আগুন লাগে। এমন খবর পেয়ে তিনিসহ প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে আগুন নিভানোর চেষ্টা করেন। ততক্ষণে পুড়ে ছাইঁ হয়ে যায় এই প্রতিবন্ধীর রঙ্গিন স্বপ্ন। আগুনে অন্তত লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। দোকানে থাকা নগদ ৪০ হাজার টাকা ও পুড়ে ছাইঁ হয়ে যায় বলে জানান ভুক্তভোগী এই পরিবারটি।

এলাকাবাসী জানিয়েছেন, তোষা মিয়া একজন অসহায় মানুষ। একটি এনজিও সংস্থা থেকে ঋন নিয়ে গ্রামে একটি মুদি দোকান দিয়েছিলেন। অন্যের কাছে হাত না পাতা এই মানুষটি সংসার নিয়ে দু’বেলা ডাল-ভাত আহারের লক্ষ্যে দোকানটি দিয়েছিলেন। টাংগুয়ার হাওরে আগত দেশ-বিদেশের পর্যটকদের গান শুনিয়ে কিছু অর্থ উপার্জন করে মোটামুটি ভালই চলছিল অসহায় এই প্রতিবন্ধীর সংসার। কিন্তু আগুনের লেলিহান শিকায় বেচেঁ থাকার শেষ অবলম্বন বাদ্যযন্ত্রগোলোও (হারমুনিয়ামসহ বিভিন্ন যন্ত্র) পুড়ে ছাইঁ হয়ে যায়।

অসহায় এই মানুষটির বাড়ি সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের গোলাবাড়ি গ্রামে। তিনি মৃত মোক্তার হোসেনের ছেলে।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পদ্মাসন সিংহ বলেন, বিষয়টি জানতে পেরেছি। লিখিত আবেদন পেলে সহযোগীতা করা হবে।