জামালপুর সদরে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন বর্তমান চেয়ারম্যান আবুল হোসেন

0
25


জামালপুর প্রতিনিধি: দলীয় মনোনয়ন বা দলীয় প্রতীক না থাকার ঘোষণার পর সম্ভাব্য অনেক প্রার্থী নিস্ক্রিয় হলেও মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন জামালপুর সদরের বর্তমান মানবিক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবুল হোসেন। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আবুল হোসেনকে পুনরায় চেয়ারম্যান দেখতে চান সদরবাসী।

নান্দিনা কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক জিএস জননেতা আবুল হোসেন জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দায়িত্ব পালন করছেন।

প্রথম শ্রেণির ১টি পৌরসভা ও ১৫ টি ইউনিয়ন নিয়ে জামালপুর সদর উপজেলা। ২০১৯ সালে সদরের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন মোহাম্মদ আবুল হোসেন। চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবার পর তিনি সদরের উন্নয়নে ব্যাপক কাজ করেন। তার পরেও বৃহৎ এই উপজেলার অনেক কাজ এখনো অসমাপ্ত রয়েছে। পুনরায় নির্বাচিত হলে তিনি সদরের অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করে স্মার্ট সদর গড়তে কাজ করবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।
জানা গেছে, আবুল হোসেন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবার পর বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। করোনাকালীন সময়ে যখন অনেকেই ঘর থেকে বের হতে ভয় পেয়েছেন তখনো আবুল হোসেন করোনায় আক্রান্ত রোগীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। ওই সময় সদরের হাজার হাজার মানুষের বাড়িতে গোপনে ও প্রকাশ্যে খাদ্য সামগ্রী এবং ওষুধ পৌঁছে দিয়েছেন। সমস্যায় থাকা অনেক মধ্যবিত্ত পরিবারের বাড়িতে রাতের অন্ধকারে খাদ্য সামগ্রী ও ওষুধ পৌঁছে দিয়েছেন। সরকারি বরাদ্দ ছাড়াও ব্যক্তি উদ্যোগে হাজারো মানবিক কাজ করায় সদরবাসীর কাছে মানবিক উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছেন আবুল।
জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হবার পর অনেকের চরিত্র পাল্টে গেলেও আবুল হোসেন এর ব্যতিক্রম। তিনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবার পর নিজেকে সদরবাসীর সেবক এবং সদরবাসীকে তাঁর মনিব মনে করেন। আওয়ামী লীগের টিকেট নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেও তিনি হন সবার চেয়ারম্যান। সাদা মনের
নির-অহংকারী আবুল হোসেন সদরবাসীর সেবায় নিয়োজিত থাকার পরেও আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের প্রতিটি কর্মকান্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত রাখেন। দলীয় প্রতিটি কর্মকান্ডে তার সরব উপস্থিতি সর্বস্তরের নেতা-কর্মীর চোখের মনিতে পরিণত হয়েছেন। দলীয় প্রতীক ও দলীয় মনোনয়ন না দেওয়ার খবরে অনেকে পিছিয়ে গেলেও মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন ক্লিন ইমেজের নেতা আবুল হোসেন।
মানুষ মানুষের জন্য এই প্রতিপাদ্য বুকে ধারন করেই কাজ করছেন সদরের চেয়ারম্যান আবুল হোসেন।

জানা গেছে, আবুল হোসেন সদরবাসীর কাছে বর্তমান সরকারের উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে নির্বাচনী গনসংযোগ করে যাচ্ছেন।
সম্প্রতি এক মতবিনিময় সভায় জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবুল হোসেন বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে ২০১৯ সালে জামালপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দিয়ে জামালপুর সদরবাসীর খেদমত করার সুযোগ করে দিয়েছিলেন।
তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের আমলের উন্নয়নের সুফল যেমন, রাস্তা-ঘাট, ব্রিজ-কালভার্ট, স্কুল-কলেজের উন্নয়ন,বয়ষ্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধি ভাতা ও ফেয়ার প্রাইজের চাল বিতরণসহ জামালপুর সদরের প্রান্তিক পর্যায়ের সাধারণ মানুষের মাঝে বিভিন্ন উন্নয়ন ছড়িয়ে দিয়েছি। পূনরায় চেয়ারম্যান হতে পারলে জীবন বাজি রেখে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা এবং শেখ হাসিনার দারিদ্র্য মুক্ত ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার মাধ্যমে জামালপুর সদর উপজেলাকে একটি স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলবো।