চট্টগ্রামে মহাসড়কে দুধ ঢেলে খামারিদের প্রতিবাদ

0
209


চট্টগ্রাম অফিসঃ
দাম কম হওয়ায় মহাসড়কে দুধ ঢেলে দিয়ে ব্যাতিক্রমী প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেছে দুধ উৎপাদনকারী খামারিরা। চট্টগ্রাম জেলা ডেইরি ফার্মস অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের কর্ণফুলীর মইজ্জারটেক টোলপ্লাজায়নগরীর কর্ণফুলী এলাকায় আজ রবিবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে এই ব্যাতিক্রমী প্রতিবাদ এবং বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

এ সময় মহাসড়কে ৩০০০ লিটার দুধ ঢেলে দেয় খামারিরা। এরপর সেখানে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে বক্তারা জানান, সম্প্রতি সময়ে করোনা মহামারিতেও পশু খাদ্যের দাম বস্তা প্রতি ২০০ থেকে ৩০০ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। ৩৫ কেজির ভূষির বস্তা আগে ৭০০ টাকা দরে কিনলেও এখন কিনতে হচ্ছে ১ হাজার টাকায়। একই ভাবে অন্যান্য পশু খাদ্যের দামও বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। তাদের অভিযোগ, পশুখাদ্যের দাম বাড়লেও লিটার প্রতি ৮ থেকে ১০টাকা কমেছে দুধের দাম।

খামারিরা আরো জানান, ৫০ থেকে ৬০টাকা লিটারের দুধ এখন ৪৫/৫০ টাকা লিটার দরে নেওয়া হচ্ছে তাদের কাছ থেকে। এতে করে লোকসান হচ্ছে তাদের। খামারিরা প্রতি লিটার তরল দুধের ষাট টাকা ন্যায্য দাম নিশ্চিত করা ও সঠিক বাজারজাত ব্যবস্থাপনা তৈরি করে ৩ টাকা পরিবহন খরচ দাবি করেন। এছাড়া দুধের ন্যায্যমূল্য না পাওয়া পর্যন্ত অনির্দ্দিষ্টকালের জন্য মিষ্টির দোকানগুলোতে দুধ সরবরাহ বন্ধ থাকবে বলে জানায়। পাশাপাশি অবিলম্বে দুধের দাম বৃদ্ধি করা না হলে আরও কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার হুমকিও দেন তাঁরা।

এছাড়া দুগ্ধ প্রসেসিং কোম্পানির সঙ্গে অ্যাসোসিয়েশন কর্তৃক নির্ধারিত দামে তরল দুধের দাম সমন্বয়, এলাকাভিত্তিক খামারিদের দুধ সংরক্ষণ ব্যবস্থাপনা তৈরি করা, ভোক্তাদের সচেতনতা বৃদ্ধি , গো-খাদ্য দাম বৃদ্ধির এবং আধুনিক খামারের জন্য বৈদেশিক যন্ত্রপাতি আমদানিতে সব শুল্ক প্রত্যাহার দাবি তুলেন।

কর্ণফুলীর দুগ্ধ উৎপাদনকারি খামারিরা জানায়, প্রায় ৯’শর অধিক ডেইরী ফার্ম দুধ উৎপাদন দৈনিক ৫০ হাজার লিটার। প্রায় চারশ’রও অধিক মানুষ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে দুগ্ধ খামার ব্যবসায় সম্পৃক্ত। চট্টগ্রামের মোট চাহিদার ৭৫ শতাংশ দুধ কর্ণফুলী থেকে পূরণ করা হয়।

চট্টগ্রাম ডেইরী ফারমার্স অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব হারুন চৌধুরী (নেভী) বলেন, খামারিদের দাবি না মানলে আগামীকাল থেকে আবারও আন্দোলন অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়ে দেন।

কর্ণফুলী উপজেলা ডেইরী ফারমার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আলহাজ্ব নাজিমউদ্দিন হায়দার বলেন, কর্ণফুলী উপজেলা খামারি থেকে এক ছটাক দুধ কোন প্রসেসিং মিষ্টির কারখানায় যাবে না। কেন না দৈনিক ৩০ হাজার লিটার দুধ চট্টগ্রামের বিভিন্ন নামকরা মিষ্টির কারখানায় নিয়ে থাকেন। তাদেরকে বিভিন্ন সময়ে দুধের মুল‍্য বৃদ্ধির জন্য বলা হলেও তাঁরা বিভিন্ন অজুহাতে সময়ক্ষ‍েপণ করে যাচ্ছেন। এই অবস্থায় গো-খাদ‍্য মুল‍্য বৃদ্ধির কারণে খামারিরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ডেইরী ফার্ম বন্ধের সম্মুখিন হয়।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ উপস্থিত জাফর ইকবাল, মোঃ ফোরকান, জামাল উদ্দিন, মোহাম্মদ নূর, আবদুল মান্নান, মাসুদ, কাউছার, নূরউদ্দিন, সোহেলসহ প্রমুখ।