গোপালগঞ্জে শিক্ষার্থী ধর্ষণের প্রতিবাদ: ধর্ষকের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন, বিক্ষোভ

0
238

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি:

গোপালগঞ্জে ৯ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে সোমবার সকালে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য-কমপ্লেক্সের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

সকাল ১০টায়  ঘন্টাব্যাপী এ কর্মসূচীতে অংশ নেয় স্থানীয় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিুবর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসী। তারা ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে।

এব্যাপারে গত ২০ ফেব্রুয়ারি টুঙ্গিপাড়া থানায় দায়েরকৃত মামলা (নং-০২) সূত্রে জানা গেছে, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি বিকেলে স্থানীয় সঞ্চারণ কোচিং সেন্টার থেকে বাড়ি ফেরার পথে ওই শিক্ষার্থী গিমাডাঙ্গা হাটখোলা এলাকায় পৌঁছিলে মিতুল মল্লিক, রসুল খান ও রাজীব শেখ নামে তিন বখাটে যুবক তাকে জোরপূর্বক ইজিবাইকে তুলে নেয়। এরপর বিভিন্ন স্থান ঘুরিয়ে সন্ধ্যারদিকে তাকে বঙ্গবন্ধু সমাধিস্থলের ২নং গেটের কাছে ঝোঁপের মধ্যে নিয়ে যায়। এসময় তাকে চেতনা-নাশক স্প্রে ও মাথায় আঘাত করলে সে জ্ঞান হারায়। এরপর বখাটেরা সংঘবদ্ধভাবে তাকে ধর্ষণ করে। রাত ৮টার দিকে বখাটেরা গিমাডাঙ্গা মুন্সীরচর এলাকায় ওই শিক্ষার্থীর বাড়ির সামনে তাকে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়। পরে রাতেই তাকে প্রথমে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে গোপালগঞ্জ আড়াই’শ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হলে পরদিন ১৫ ফেব্রুয়ারি বিকেলে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

অভিযুক্ত মিতুল মল্লিক টুঙ্গিপাড়ার শ্রীরামকান্দি গ্রামের আনোয়ার মল্লিকের ছেলে, রাজীব শেখ একই গ্রামের শুকুর আলী শেখের ছেলে এবং রসুল খান গওহরডাঙ্গা গ্রামের আকবর আলী খানের ছেলে।

সোমবার টুঙ্গিপাড়া থানার ওসি এ এফ এম নাছিম জানিয়েছেন, মেয়েটির পিতা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে ও মেয়েটির ডাক্তারি পরিক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।