গোপালগঞ্জে ভুমিহীনদের জন্য ৭৮৭ টি ঘর নির্মাণ করা হবে: ডিসি

0
235

গোপালগঞ্জ থেকে মিজানুর রহমান মানিক:

মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার ও তাঁর সরকারের দেওয়া প্রতিশ্রুতি হিসেবে গোপালগঞ্জের ভুমিহীনদের জন্য ৭৮৭ টি গৃহ নির্মান করা হবে।

বুধবার বেলা ১১ টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে একটি সাংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয়।

প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা বলেন, ‘‘গোপালগঞ্জ সদরে ৪৮০ টি, কাশিয়ানীতে ২০০ টি, মুকসুদপুরে ৫০ টি, কোটালীপাড়ায় ৩০ টি ও টুঙ্গিপাড়ায় ২৭ টি গৃহ মিলে মোট ৭৮৭ টি গৃহ নির্মাণের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। মধুমতি নদীর তীরে পাউবো ভুমিতে এবং বিভিন্ন ইউনিয়নে সরকারী খাস খতিয়ানের ভুমিতে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রকল্পের এই গৃহ নির্মানের কাজ চলছে।”

তিনি আরো বলেন, ‘‘দুই শতাংশ সরকারী জমির উপর এক লাখ ৭১ হাজার টাকা ব্যয়ে দুই কক্ষ বিশিষ্ট ওয়ালসেড ঘর ও পাকা ল্যাট্রিনসহ রান্নাঘর নির্মান করা হচ্ছে। নির্মানকাজ শেষে ইউনিয়ন থেকে প্রাপ্ত ভুমিহীন তালিকা যাচাই বাছাই করে প্রকৃত ভুমিহীনদের নামে জমিসহ গৃহের কবুলিয়াত তাদের হাতে তুলে দিয়ে পূনর্বাসন করা হবে।”

জেলা প্রশাসক বলেন, আগামী ১০ জানুয়ারী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে ভুমিহীনদের হাতে কবুলিয়াত তুলে দিবেন। একই সাথে ১০ জানুয়ারীর মধ্যে গোপালগঞ্জের ৭৮৭ টি গৃহ নির্মান করে ভুমিহীনদের হাতে কবুলিয়াত তুলে দেওয়ার জন্য দ্রুত গতিতে কাজ চলমান রয়েছে। তিনি প্রধানমন্ত্রীর এই বিশেষ প্রকল্পের কাজ তদারকী, মনিটরিংয়ের জন্য সকলকে তাগিদ দেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোছা. শাম্মী আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন গনপুর্ত নির্বাহী প্রকৌশলী অমিত কুমার বিশ্বাস, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কাজী শহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ ইলিয়াছুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগ সিনিয়র সহ সভাপতি শেখ রুহুল আমিন, সাধারন সম্পাদক মাহাবুব আলী খান, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রাশেদুর রহমান, আরডিসি দীনেশ সরকার এবং গোপালগঞ্জে কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।