গবেষক ও প্রাবন্ধিক মীম মিজান-এর এম.ফিল. ডিগ্রি অর্জন

0
316


নিজস্ব প্রতিবেদক:
উদীয়মান তরুণ গবেষক, প্রাবন্ধিক ও অনুবাদক মীম মিজান অতি সম্প্রতি এম.ফিল. ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

‘সাদেক হেদায়াতের ফারসি ছোটগল্পে সমাজচিত্র’ শিরোনামের উপর তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগ থেকে প্রথম এম.ফিল. গবেষক হিশেবে এ ডিগ্রি অর্জন করেছেন।গত ২৭ ফেব্রুয়ারি’২১ রোজ শনিবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০৪তম সিন্ডিকেট সভায় তার গবেষণার উপর ইতিবাচক রিপোর্ট পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্তটি পাশ হয়।

তার এ গবেষণার তত্ত্বাবধায়ক ছিলেন রাবি ভাষা বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের প্রফেসর ড. মো. কামাল উদ্দিন। এক্সপার্ট হিশেবে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রোক্টর ও ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও প্রফেসর ড. কে এম সাইফুল ইসলাম খান এবং একই বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও প্রফেসর ড. আব্দুস সবুর খান।

তিনি তার এ অর্জনে কৃতজ্ঞতা স্বীকার করেছেন তার বিভাগীয় সকল শিক্ষকসহ শুভাকাঙ্ক্ষীদের নিকট।

উল্লেখ্য যে, তিনি ১৯৮৮ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি নীলফামারী জেলার জলঢাকা থানার কৈমারীতে জন্মগ্রহণ করেন। স্থানীয় প্রতিষ্ঠানে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শেষ করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে ভর্তি হন। স্নাতকে দ্বিতীয় মেধাস্থান ও স্নাতকোত্তরে প্রথম মেধাস্থান অধিকার করেন।

ইরান সরকারের বৃত্তি লাভ করে ইমাম খোমেনি আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চতর ফারসি ভাষা কোর্স সম্পন্ন করেছেন।

ছাত্রাবস্থা থেকে তিনি লিখালিখি করেন। ছড়া-কবিতা দিয়ে লিখালিখির জগতে প্রবেশ করলেও অনুবাদক এবং প্রাবন্ধিক হিশেবে পাঠক মহলে সমাদৃত। অনুবাদে অবদানের জন্য ‘বঙ্গভূমি বর্ষসেরা পদক-২০১৮’ তে ভূষিত হন। উদীয়মান প্রাবন্ধিক হিশেবে ‘বাসাসপ বিশেষ সম্মাননা-২০২০’ এবং ভারতের উত্তর হাওড়া শিল্পী সংস্থা প্রদত্ত ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সম্মাননা-২০২০’ লাভ করেছেন।

বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক, সাপ্তাহিক, মাসিকসহ প্রায় সকল সাময়িকীতে তার সরব উপস্থিতি। এছাড়াও পশ্চিমবঙ্গসহ বিশ্বের বাংলা পত্রিকা ও সাময়িকীতে কবিতা, গল্প, প্রবন্ধ, অনুবাদ ও কলাম প্রকাশ হচ্ছে নিয়মিত।