খুলনায় ৪ জন ক্যাথলিক ডিকন যাজক পদে অভিষিক্ত

0
291

খুলনা থেকে ফাদার নরেন জে. বৈদ্যঃ

খুলনা অঞ্চলের খ্রীষ্টান সম্প্রদায়ের ক্যাথলিক মন্ডলীর প্রধান বিশপ জেমস্ রমেন বৈরাগী সাম্প্রতিক তাঁর ধর্মপ্রদেশের ৪ জন ডিকনকে যাজক পদে অভিষিক্ত করেন।

ডিকনগণ হলেন– ডিকন জয় সলোমন মন্ডল (বড়দল ধর্মপল্লী), ডিকন রনি লাজার মন্ডল (কার্পাসডাঙ্গা ধর্মপল্লী), ডিকন বিপ্লব রিচার্ড বিশ্বাস (শিমুলিয়া ধর্মপল্লী) ও ডিকন আনন্দ যোসেফ মন্ডল, সি.এস.সি. (সাতক্ষীরা ধর্মপল্লী), মুজগুন্নী সেন্ট মেরীস্ ধর্মপল্লীতে, খুলনার ধর্মপাল বিশপ জেমস্ রমেন বৈরাগী কৃর্তক যাজক পদে অভিষিক্ত হন।

গত ১৯শে নভেম্বর, সোনাডাঙ্গা উপধর্মপল্লী বিশপস্ হাউজ মাঠ প্রাঙ্গণে ডিকনদের কল্যাণ কামনায় গায়ে হলুদ মাঙ্গলিক অনুষ্ঠান এবং পবিত্র আরাধনা অনুষ্ঠিত হয়।

মঙ্গলবাণী অনুধ্যানে ফা: নরেন বলেন যে, অভিষিক্ত যাজক খ্রীষ্টের পরিত্রাণদায়ী কাজকে নিজের প্রেরিতিক কাজ হিসেবে গ্রহণ করে থাকেন। ডিকনগণ যাজক পদে অভিষিক্ত হয়ে খ্রীষ্ট যীশুর প্রেরিত শিষ্যের পুণ্যাসনে তারা অধিষ্ঠিত হবেন। ৪জন ডিকন, মহাযাজক খ্রিষ্টের জীবনাদর্শে তারা নিজেদের জীবন পরিচালিত করবে। পুণ্য অভিষেক দ্বারা ঈশ্বরের জনগণকে প্রতিপালন করবে। পদ-পদবী, সস্মানের আসন পাবার কাঙ্গালপনা বাদ দিয়ে, দীন দরিদ্রদের আত্মিক ক্ষুধা পিপাসা নিবারণ করবে।

পরের দিন ২০শে নভেম্বর, যথাযথ মর্যাদায় বিপুল সংখ্যাক যাজক, সিস্টার ও ডিকনগণের আত্মীয় স্বজন ও বিশ্বাসীভক্তের উপস্থিতিতে, সকাল ১০ ঘটিকায় মুজগুন্নী সেন্ট মেরীস্ ধর্মপল্লীর গীর্জায় বিশপ জেমস্ বৈরাগী, তাদের যাজক পদে অভিষিক্ত করেন।

বিশপ যাজক প্রার্থীদের জিজ্ঞাসা করেন: পবিত্র আত্মার সহায়তার উপর নির্ভর করে খ্রিষ্টভক্তদের সযতেœ প্রতিপালনের কাজে বিশপগণের বিশ্বস্ত সহকারীরূপে যাজকীয় দায়িত্ব পালন করতে তুমি কি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ? প্রার্থী বলেন : হ্যাঁ আমি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। বিশপ: ঈশ্বরের গৌরব ও খ্রিষ্টবিশ্বাসীদের পবিত্রার জন্য খ্রিষ্টমন্ডলীর ঐতিহ্য রক্ষা করে নিষ্ঠা ও ভক্তি সহকারে খ্রিষ্টিয় উপাসনা- অনুষ্ঠানসমূহ সম্পাদন করতে তুমি কি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ? প্রার্থী : হ্যাঁ আমি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। অত:পর বিশপের সামনে ডিকনগণ বাধ্যতা ব্রতগ্রহণের প্রতিজ্ঞা করেন।

খ্রিষ্টযাগের পরে খুলনা ধর্মপ্রদেশের পক্ষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ৪ জন ডিকনকে সংবধনা ও শুভেচ্ছা প্রদান করা হয়। মধ্যাহ্ন প্রীতিভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।

ফাদার আনন্দ যোসেফ মন্ডল, সি.এস.সি.
ধর্মপল্লী : সাতক্ষীরা, গোয়ালচাতর উপধর্মপল্লী, পিতা : যোহন, মাতা : মার্গারেট, মরো সেমিনারীতে প্রবেশ ২০০৬ খ্রি:, দর্শন ও ঐশতত্ত্ব অধ্যায়ন, বনানী পবিত্র আত্মা উচ্চ সেমিনারী ২০১৩ থেকে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ। আজীবন ব্রত গ্রহণ ঢাকা পবিত্র ক্রুশ সাধনাগৃহ, রামপুরা। ডিকন পদে অভিষিক্ত ১৩ জুন,রামপুরা। ধন্যবাদের খ্রিষ্টযাগ অর্পণ ২২ নভেম্বর, সাতক্ষীরা প্রভু যীশুর গির্জা। প্রথম যাজকীয় পালকীয় কাজ আরম্ভ করবেন রাজশাহী ফৈলজনা ধর্মপল্লীতে।

ফাদার জয় সলোমন মন্ডল
ধর্মপল্লী: বড়দল, চাচাই উপধর্মপল্লী, পিতা : যোহন নন্দলাল, মাতা : ক্যাথারিনা ঝর্ণা, খুলনা, মাইনর সেমিনারীতে প্রবেশ ৩ জানুয়ারী, ২০০৩ খ্রি:, দর্শন ও ঐশতত্ত্ব অধ্যায়ন, বনানী পবিত্র আত্মা উচ্চ সেমিনারী ১৯ জুলাই, ২০১৩ থেকে ২৮ মে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ। ডিকন পদে অভিষিক্ত ১২জুন, প্রভু যীশুর র্গিজা, সোনাডাঙ্গা। তিনি তাঁর জীবনের প্রথম ধন্যবাদের খ্রিষ্টযাগ অর্পণ করেন ২৩ নভেম্বর, চাচাই উপধর্মপল্লীতে। প্রথম যাজকীয় পালকীয় কাজ আরম্ভ করবেন শেহালাবুনিয়া ধর্মপল্লীতে।

ফাদার রনি লাজার মন্ডল
ধর্মপল্লী: কার্পাসডাঙ্গা, পিতা: সলোমন, মাতা: মাকুলতা, খুলনা, মাইনর সেমিনারীতে প্রবেশ ৪ জানুয়ারী, ২০০৪ খ্রি:, দর্শন ও ঐশতত্ত্ব অধ্যায়ন, বনানী পবিত্র আত্মা উচ্চ সেমিনারী ১৯ জুলাই, ২০১৩ থেকে ২৮ মে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ। ডিকন পদে অভিষিক্ত ১২জুন, প্রভু যীশুর র্গিজা, সোনাডাঙ্গা। ধন্যবাদের খ্রিষ্টযাগ অর্পণ ২৩ নভেম্বর, চাচাই উপধর্মপল্লীতে। প্রথম যাজকীয় পালকীয় কাজ আরম্ভ করবেন শেহালাবুনিয়া ধর্মপল্লীতে।

ফাদার বিপ্লব রির্চাড বিশ্বাস
ধর্মপল্লী: শিমুলিয়া, পিতা: মুংলা, মাতা: মৃত কিরণ আগাথা বিশ্বাস, খুলনা, মাইনর সেমিনারীতে প্রবেশ ৬ জানুয়ারী, ২০০২ খ্রি:, দর্শন ও ঐশতত্ত্ব অধ্যায়ন, বনানী পবিত্র আত্মা উচ্চ সেমিনারী ১৯ জুলাই, ২০১৩ থেকে ২৮ মে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ। ডিকন পদে অভিষিক্ত ১২জুন, প্রভু যীশুর র্গিজা, সোনাডাঙ্গা। ধন্যবাদের খ্রিষ্টযাগ অর্পণ ২৬ নভেম্বর, শিমুলিয়া। প্রথম যাজকীয় পালকীয় কাজ আরম্ভ করবেন কার্পাসডাঙ্গা ধর্মপল্লীতে।