কুমিল্লায় ফেসবুকের কমেন্টসকে কেন্দ্রকরে হিন্দুদের ঘরবাড়িতে আগুন

0
222


নিউসান ডেস্ক:
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে কমেন্টের জের ধরে কুমিল্লায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘর ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের করেছে স্থানীয় একদল বাসিন্দা। রবিবার (১ নভেম্বর) বিকালে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা থানার ৪নং পূর্ব ধইর ইউনিয়নের কোরবানপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এতে সেখানকার হিন্দু পরিবারের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আজিমুল আহসান।
জানা গেছে, আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বনকুমার শিবের অফিস। হামলা ও ভাঙচুর চালানো হয়েছে ৯/১০টি পরিবারের বসতঘরে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে কাজ করেছে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা।
এদিকে বাড়িঘর ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ছবি ও ভিডিও মুহূর্তের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে তাৎক্ষণিকভাবে ছুটে যায় স্থানীয় বাঙ্গরা থানার পুলিশ। এরপর কুমিল্লা জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলামসহ প্রশাসনের বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শনিবার (৩১ অক্টোবর) কোরবানপুরের এক ব্যক্তির ফেসবুকে করা মন্তব্য নিয়ে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় ঐ ব্যক্তির বিরুদ্ধেদ্ধে একটি মামলাও হয়েছে। ওই মামলায় রবিবার (১ নভেম্বর) পুলিশ অভিযুক্তসহ দুজনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। মামলার অন্য আসামি মুরাদনগর উপজেলার ছেলে।

কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আজিমুল আহসান জানান, ওই ঘটনার রেশ ধরে রবিবার বিকালে কোরবানপুরের স্থানীয় একদল বাসিন্দা স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বনকুমার শিবের অফিস, গ্রেফতারকৃত অভিযুক্তের বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ এবং বেশ কিছু ঘরবাড়ি ভাঙচুর করে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা কাজ করেছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া কুমিল্লার জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলামসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে গিয়েছেন।