কবিরাজের অপর্কমের জের সরিষাবাড়ীতে বাড়ি-ঘরে হামলা ভাংচুর সংঘর্ষ আহত ১০

0
271

সরিষাবাড়ী প্রতিনিধি : জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে আনোয়ার হোসেন নামে এক কবিরাজের অপকর্ম ও অপকৌশলের ঘটনার জের ধরে বাড়ি ঘরে হামলা, ভাংচুর ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের টাংঙ্গাইল রাজিবদিয়ার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় ও ভুক্ত-ভুগীদের অভিযোগে জানা যায়, উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের টাংঙ্গাইল রাজিবদিয়ার গ্রামের মহর আলী ছেলে আনোয়ার হোসেন(৪৫)। এলাকায় কবিরাজ আনোয়ার হিসেবে পরিচিত। কবিরাজ তার ব্যক্তিগত সকল কাজে ভয়ভীতি দেখিয়ে এলাকাবাসিকে জিম্মি করে রেখেছেন। কবিরাজ আনোয়ার হোসেনের কথা মতো এলাকার কেউ রাজি না হলে তাকে কবিরাজি করে ক্ষতিগ্রস্থ্য করে আসছিল। কবিরাজি তার পরিবারকেও ছাড় দেয়নি। তার বাবা প্রতিবাদ করায় তাকেও পাগল বানিয়ে ঘরে রেখে দিয়েছে। কবিরাজের বাবা মহর আলীর সাথে কথা বলতে গেলে তিনি ইশারা দিয়ে বুঝাতে চাইছিলেন সে কথা বলতে পারে না। ওই এলাকার অনেক পরিবারের মেয়ে-ছেলেদের বিবাহ বন্ধসহ সুকৌশলে অসুস্থ করে রাখছেন মানুষকে। কবিরাজের এসব অপকর্মকান্ডের প্রতিবাদ করায় প্রতিবেশী জিন্নত আলী সঙ্গে বিরোধ চলে আসছে কবিরাজ আনোয়ার হোসেনের। ফলে শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে জিন্নত আলীর ছেলে আসিক মিয়া গরুর খাবার (খড়) নিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে রাস্তার পাশে কবিরাজের ওষূধির গাছে কিছু খড় লেগে যায়। এ নিয়ে আসিক মিয়াকে মারধর করে কবিরাজ আনোয়ার। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। একপর্যায় উভয় পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে লিপ্ত হন। এ সময় ক্ষিপ্ত হয়ে কবিরাজ আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে তার সমর্থকরা লাঠিসোটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে জিন্নত আলীর বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে নারী-পুরুষদের ব্যাপক মারধর করে। পরে জিন্নত আলীর সমর্থকরা পাল্টা হামলা চালিয়ে আনোয়ারের বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে একটি রান্না ঘর ভাংচুর করে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আহতরা হলেন-আশিক মিয়া (১৪), মিল্টন মিয়া (১৬), নুরজাহান বেওয়া (৮০), মোফাজ্জল হোসেন (৫০), কহিনুর বেগম (৩৫), রেখা খাতুন (৩২), রানা মিয়া (২৫), আনেয়ার হোসেন (৪৫) ও শেফালী আক্তার (৩৩)। পরে আহতদের উদ্ধার করে সরিষাবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
কবিরাজের প্রতিবেশি ব্যবসায়ী শাহজাহান বলেন, কুফুরী করে মানুষকে অনেক ক্ষতি করে আসছে। এ জন্য কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পায়না। গ্রামবাসিসহ আশপাশের এলাকার মানুষ ভয়ে কিছু বলতে সাহস পায় না। এ সুযোগে কাজে লাগিয়ে মানুষের উপর অত্যাচার চালিয়ে আসছে কবিরাজ আনোয়ার হোসেন।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)আবু মো.ফজলুল করিম জানান, এ ঘটনায় এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।