আফজাল হুসাইন খান দয়াল’র কবিতা।

0
225

 

কাঁচ ভাঙা হৃদপিণ্ড
————————————————

 

কুনইয়ের ভরে যখন পৃথিবীটা ধীর গতিতে তার মাকে স্পর্শ করে—-
আমার চোখ দুটো লুপাট হয়েছে মৃত ঘাসফুলের মতো।
জানি এখনো সন্ধ্যা নামেনি তবুও ঘোর আমাবস্যা রাত!

বেলকোনিতে ঝুলন্ত ফুলগাছটি বলছিলো হ্রদপিণ্ড ও মরণশীল,,,,

সেদিনও হাওয়া থেকে বিষ টেনে নিয়ে আমি বিষাক্ত হয়েগেছি —–
আজ টালমাটাল আয়ুরেখা যেমন থেমে যেতে চায়
কয়েক সেকেন্ড পূর্বে মৃত ব্যাক্তিটির এমন অনুভব হয়।

তাও কি নিয়ম খণ্ডাতে পারি আমি বা প্রকৃতি?

উড়ার কতো চেষ্টাইতো করে ডেট বডিতে আটকে পড়া জীবন্ত নিশ্বাস
তবুও কি আকাশটি গিলে খেতে পারে—সিমান্ত রেখার চোখ?

তবে আমায় এতো জোড় খাটাও কেন বাল্মীকি?
তোমার রন্ধ্রে রন্ধ্রে যে জোয়ার!

আমার কলমে লিখবো সীতা হরণের উপাখ্যান?
কোথা সে অধিকার?

কোথায় মহিম!
আর কোথায় আমি নরাধম পাপী!

 

.